অনতিবিলম্বে কাদিয়ানিদের কাফের ঘোষণা না করে টালবাহানার আশ্রয় নিলে সারাদেশে আন্দোলনের আগুন জ্বলে উঠবে বলে হুশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন বাংলাদেশ খেলাফত ছাত্র মজলিসের কেন্দ্রীয় সভাপতি মুহাম্মাদ জাকির হুসাইন।

বাংলাদেশ খেলাফত ছাত্র মজলিস ঢাকা মহানগরের উদ্যোগে বি-বাড়িয়ায় মাদরাসা ছাত্রদের ওপর কাদিয়ানিদের হামলার প্রতিবাদে ঢাকার মোহাম্মদপুরে বিক্ষোভ মিছিল পরবর্তী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

তিনি বলেন কাদিয়ানিদের কাফের ঘোষণার দাবি আজকের নতুন নয়। প্রায় শত বছর যাবত নবী প্রেমিক তাওহীদি জনতার প্রাণের দাবি এটি। এ দাবি আদায়ে রক্ত দানের দীর্ঘ উপখ্যানও রচনা করেছে তাঁরা। কিন্তু পৃথিবীর কয়েকটি রাষ্ট্রে কাদিয়ানিদের কাফের ঘোষণা করা হলেও প্রায় ৯০% মুসলমানের বাংলাদেশে আজও নবীর দুশমন, মানবতার দুশমন সন্ত্রাসী কাদিয়ানি সম্প্রদায়কে কাফের ঘোষণা করা হয়নি। উল্টো পূর্বাপর সকল ক্ষমতাসীনদের প্রকাশ্য-অপ্রকাশ্য মদদে তারা দিনেদিনে হিংস্র থেকে হিংস্রতর হয়ে উঠছে। মুসলমানদের ঈমান হরন থেকে শুরু করে প্রাণনাশ করতেও দ্বিধাবোধ করছেনা।

সর্বশেষ বিবাড়িয়ার কান্দিরপাড় এলাকায় ঘটে যাওয়া নৃশংস হামলা যার জ্বলন্ত প্রমাণ। হামলাকারীদের দ্রুত আইনের আওতায় এনে শাস্তির ব্যবস্থা করার জোর দাবি জানাচ্ছি।

মহানগর উত্তরের সভাপতি মাহমুদুল হাসানের সভাপতিত্বে উক্ত বিক্ষোভ মিছিল ও পরবর্তী সমাবেশে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ খেলাফত যুব মজলিস ঢাকা মহানগরের সভাপতি মাওলানা রাকিবুল ইসলাম, সহ-সভাপতি মাওলানা জাহিদুজ্জামান ও মোহাম্মদপুর থানার সভাপতি মাওলানা আল আবিদ শাকির। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ খেলাফত ছাত্র মজলিসের সভাপতি পরিষদ সদস্য মুহাম্মাদ মোশাররফ হুসাইন লাবীব,কেন্দ্রীয় প্রশিক্ষণ সম্পাদক মুহাম্মাদ খালিদ সাইফুল্লাহ, বাইতুল মাল সম্পাদক মুহাম্মাদ উমর ফারুক সহ মহানগর উত্তর ও দক্ষিণের দায়িত্বশীলবৃন্দ।

খেলাফত ছাত্র মজলিস ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি মুহাম্মাদ কামালুদ্দীনের মোনাজাতের মাধ্যমে বিক্ষোভ মিছিল পরবর্তী সমাবেশ সমাপ্ত হয়। (বিজ্ঞপ্তি)

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here