রাজধানীর কুর্মিটোলায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি)২য় বর্ষের এক ছাত্রীকে ধর্ষণের প্রতিবাদ ও ধর্ষকদের শাস্তি দাবি করেছে বাংলাদেশ খেলাফত ছাত্র মজলিস।আজ গণমাধ্যমে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে তারা এ দাবি জানান।

সংগঠনটির কেন্দ্রীয় সভাপতি মুহাম্মাদ জাকির হুসাইন বলেন,ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীকে ধর্ষণের মতো জঘন্য ও পাশবিক ঘটনায় ধিক্কার জানাই ।

তিনি বলেন, বিচারহীনতার সংস্কৃতির কারণে আট দশটা অপরাধের মতো ধর্ষণওআমাদের দেশে নিত্যদিনের একটা রুটিন হয়ে গেছে। ধর্ষণের খবর দেখে সকালে ঘুম ভাঙে, ধর্ষণের খবর শুনে আমরা রাতে ঘুমাতে যাই। আমাদের দেশে অপরাধের পর একটি তদন্ত কমিটি গঠনের মাধ্যমে বিষয়টিকে ধামাচাপা দেয়া হয়। যার ফলে এরকম ঘটনা বেড়েই চলেছে।

প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আমরা উদ্বেগের সঙ্গে লক্ষ করছি, ধর্ষণ একটি মারাত্মক সামাজিক ব্যাধিতে পরণিত হচ্ছে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর শৈথিল্য, বিচারের দীর্ঘসূত্রিতা এবং কখনো কখনো সঠিক তদন্তের অভাবে অপরাধীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি না হওয়ায় সমাজে ধর্ষণব্যাধির বিস্তার ঘটে চলেছে। আমাদের এখনই এসবের মূলোৎপাটনে রুখে দাঁড়াতে হবে, নতুবা এটি অধিকতর মহামারি আকার ধারণ করবে- যা আমাদের দেশ ও জাতির জন্য দীর্ঘমেয়াদি অসহনীয় ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়াবে। একইসঙ্গে আমরা ধর্ষণের মতো ঘৃণ্য কাজের অবসানকল্পে সমাজের সকল শ্রেণি-পেশার মানুষকে ঐক্যবদ্ধ প্রতিরোধ গড়ে তোলার আহ্বান জানাই।

আমরা অনতিবিলম্বে ধর্ষণের সঙ্গে যুক্ত নরপিশাচদের গ্রেপ্তার দাবি করছি এবং তাদেরকে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি প্রদানের মধ্য দিয়ে ন্যায়বিচার নিশ্চিত করার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here