দেশে প্রথমবারের মতো যাত্রা শুরু করেছে ‘হিউম্যান মিল্ক ব্যাংক’। মায়ের বুকের দুধ সংরক্ষণের এ ব্যাংকটি ১ ডিসেম্বর চালু হলেও আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের অপেক্ষায় আছে। ‘হিউম্যান মিল্ক ব্যাংক’ ঢাকা জেলার মাতুয়াইলের শিশু-মাতৃস্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের (আইসিএমএইচ) নবজাতক পরিচর্যা কেন্দ্র (স্ক্যানো) এবং নবজাতক আইসিইউয়ের (এনআইসিইউ) নিজস্ব উদ্যোগ। বেসরকারি আর্থিক সহায়তায় ব্যাংকটি স্থাপন করা হয়েছে।

জানা গেছে, যে মায়েদের সন্তান জন্মের পর মারা গেছে বা নিজের সন্তানকে খাওয়ানোর পরও মায়ের বুকে অতিরিক্ত দুধ আছে, সেই মায়েরা হিউম্যান মিল্ক ব্যাংকে দুধ সংরক্ষণ করে রাখতে পারবেন। যে নবজাতকের জন্মের পরই মা মারা গেছেন বা যাদের মা অসুস্থতার জন্য দুধ খাওয়াতে পারছেন না, সেই নবজাতকেরা এই দুধ খেতে পারবে।

এ বিষয়ে মাওলানা মামুনুল হক বলেন, আল্লাহ তায়ালা পবিত্র কোরআনে স্পষ্ট ঘোষণা করেছেন- ‘তোমাদের জন্য হারাম করা হয়েছে তোমাদের মাতা, তোমাদের কন্যা, তোমাদের বোন, …… এবং যারা তোমাদেরকে স্তন্যপান করিয়েছে এবং তোমাদের দুধ-বোন……।

আল্লাহর রাসূল সা. বলেছেন, ‘রক্তের সম্পর্কের ভিত্তিতে যেসব স্বজনেরা (বিয়ের জন্য) হারাম, দুধপানের সম্পর্কের ভিত্তিতেও তারা হারাম।’ (বুখারী, মুসলিম)

মুহাম্মদী আরাবী সা. জন্মগ্রহণ করেন মা আমেনার গর্ভে। আর দুধ পান করেন হালিমা সাদিয়া রা,-এর।

হিউম্যান মিল্ক ব্যাংক ভয়ংকর ষড়যন্ত্র। এখনই রুখে দাঁড়াতে হবে। না হয় সমাজে ভাই-বোনের বিয়ে হয়ে যাবে। অথচ তারা টেরই পাবে না।

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here