দলের নেতাকর্মীদের গ্রেফতার ও হয়রানি করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ। সোমবার (২৪ ডিসেম্বর) দলটির একটি প্রতিনিধি দল প্রধান নির্বাচন কমিশনারের সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ অভিযোগ করেন।

প্রতিনিধি দলের প্রধান ও দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব এটিএম হেমায়েত উদ্দিন বলেন, ‘নির্বাচনে আমরা লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড প্রত্যাশা করেছিলাম। কিন্তু তার কোনও উপস্থিতি লক্ষ করা যাচ্ছে না। সরকারি দল ও পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে নানা ধরনের ভয়ভীতি দেখানো হচ্ছে। প্রার্থীরাও আত্মগোপনে থাকতে বাধ্য হচ্ছেন। এ পরিস্থিতিতে নির্দিষ্ট পরিচয়ের মানুষ ছাড়া অন্যরা ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারবেন কিনা, তা নিয়ে সংশয় রয়েছে।’

দলটির কেন্দ্রীয় নেতা ও প্রতিনিধি দলের সদস্য মাওলানা ইমতিয়াজ আলম বেশ কয়েকটি স্থানে নির্বাচনি দায়িত্বে নিয়োজিত নেতাকর্মীদের গ্রেফতারের অভিযোগ তুলে বলেন, ‘আমাদের নেতাকর্মীদের জামায়াত-শিবির অভিযোগে গ্রেফতার করা হচ্ছে। তাদের বিরুদ্ধে ভাঙচুরের মামলা দেওয়া হচ্ছে।’

এর আগে দলটির পক্ষে থেকে সিইসির কাছে ১২টি নির্বাচনি এলাকায় নেতাকর্মীদের ওপর হামলা, দলীয় কার্যালয় ভাঙচুর, মিছিলে হামলা, প্রচারে বাধা প্রদানসহ নানা অভিযোগ করা হয়। আসনগুলো হলো, বরিশাল-৫, খুলনা-৩, সিরাজগঞ্জ-১, ঝিনাইদহ-৪, মাদারীপুর-২, কুমিল্লা-৬, নোয়াখালী-৪, ঢাকা-৫, পিরোজপুর-২, লালমনিরহাট-১, সাতক্ষীরা-২ ও বরগুনা-২।

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here