‘আদরের প্রিয়’ গাড়িতে ধাক্কা লাগানোর অজুহাতে এক নসিমন চালককে প্রকাশ্যে পিটিয়ে আলোচনায় আসা নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ পৌরসভার মেয়র সাদেকুর রহমানকে আটক করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার ভোরে উপজেলার গোয়ালদির বাড়ি থেকে তাকে আটক করা হয় বলে জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মনিরুল ইসলাম জানান।

বাংলাদেশ কেমিস্ট্র অ্যান্ড ড্রাগিস্ট সমিতির (বিসিডিএস) কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি সাদেকুর শনিবার নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনে মহাজোটের মনোনীত জাতীয় পার্টির প্রার্থী লিয়াকত হোসেন খোকার পক্ষে জনসংযোগ শেষে নিজের প্রাইভেটকারে করে বাড়ি ফেরার পথে ওই ঘটনা ঘটান।

একজন প্রত্যক্ষদর্শী মোবাইল ফোনে ঘটনাটি ধারণ করে ফেইসবুকে তুলে দিলে তা ভাইরাল হয়ে যায়।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মনিরুল বলেন, এক নসিমন চালককে মেয়র সাদেকুরের পেটানোর ভিডিও ফেইসবুকে দেখে তাকে আটক করা হয়।তাকে ডিবি কার্যালয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

ভাইরাল হওয়া ওই ভিডিওতে দেখা যায়, নসিমন চালক পা ধরে বার বার ক্ষমা চেয়ে কান্নাকাটি করলেও মেয়রের মন গলেনি। বরং আরও রেগে গিয়ে তিনি ছেলেটিকে লাথি মারেন এবং হাতের লাঠি দিয়ে তাকে পেটাতে থাকেন। পরে স্থানীয়দের কয়েকজন এগিয়ে এসে মেয়রকে বুঝিয়ে শান্ত করার চেষ্টা করেন।

ওই ঘটনার বিষয়ে জানতে চাইলে সাদেকুর রহমান বলেন, “আমি আমার গাড়ি খুব যত্ন করে রাখি। কিন্তু ওই ছেলে বাঁশ বোঝাই নসিমন লাগিয়ে দিয়ে আমার গাড়ি দুমড়ে মুচড়ে ফেলে।তাই রাগে হাতের লাঠি দিয়ে তাকে কয়েকটা আঘাত করেছি।”

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here