বর্নাঢ্য আয়োজনে সম্পন্ন হলো ‘সীরাত বক্তৃতা’– বইয়ের মোড়ক উন্মোচন।গত ৭ মার্চ রবিবার বিকেল ৩টায় বাইতুল মুমিন মাদরাসা মিলনায়তনে অত্র প্রতিষ্ঠানের শিক্ষাসচিব,বিশিষ্ট লেখক গবেষক যুবকণ্ঠের নির্বাহী সম্পাদক হাবীবুল্লাহ সিরাজ রচিত ‘সীরাত বক্তৃতা’– বইয়ের মোড়ক উন্মোচন হয়। বইটি প্রকাশ করেছে রুচিশীল প্রকাশনা সংস্থা রাহবার প্রকাশনী।

মাদরাসার প্রতিষ্ঠাতা প্রিন্সিপাল মুফতি নেয়ামতুল্লাহ আমিনের সভাপতিত্বে মাওলানা ফয়সাল মহমুদের উপস্থাপনায় মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে আলোচনা করেন, বিশিষ্ট আলেমেদ্বীন, বরেণ্য আলোচক মুফতি সাখাওয়াত হুসাইন রাজি, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, মাওলানা ইমদাদ আশরাফ, মাওলানা হাশমতুল্লাহ ফরিদী, মুফতী জাকারিয়া মাহমুদ, মাওলানা আশরাফুল ইসলাম, মাওলানা আল আমিন সিরাজী, মাওলানা ফজলুল হক সিদ্দিকী, মাওলানা মাইনুল ইসলাম প্রমুখ

আলোচনায় বক্তারা সীরাত চর্চার গুরুত্ব তুলে ধরে বলেন, আধুনিককালে মানুষের শিক্ষা-দীক্ষার নানান চমকপ্রদ দ্বার উন্মুক্ত হয়েছে এবং তাদের পাঠাভ্যাসও বৃদ্ধি পেয়েছে সমানতালে। মানুষ বই, কিতাব, পত্র-পত্রিকা, ফিল্ম ও অন্যান্য মিডিয়ায় অবগাহন করে পাশ্চাত্য ও প্রাচ্যের শিক্ষা-সংস্কৃতি গিলছে গোগ্রাসে। অথচ অধিকতর পাঠাভ্যাস এবং অধ্যয়নযোগ্য করে তুলা উচিত হলো রাসূলে আরাবী মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের সীরাত। কেননা, যুগ-যুগান্তর ধরে মানুষ যে জ্ঞান, পাণ্ডিত্য, মনীষা, মেধা ও মুক্তির সাধনা করে এসেছে, রাসূলে আরাবীতে এসে তা পূর্ণতা পেয়েছে। মানুষের কালান্তরের ন্যায়, সততা, পবিত্রতা, আধ্যাত্মিকা, মনুষ্যত্ব তথা মানবিক গুণাবলীর সামগ্রিক সাধনা তাঁর মাঝে এসে চূড়ান্ত আকৃতি পেয়েছে। আর সে চরিত্রটিই ফুটিয়ে তুলেছে প্রিয় লেখক হাবীবুল্লাহ সিরাজ ‘সীরাত বক্তৃতা’গ্রন্থ লেখার মাধ্যমে।

তারা আরও বলেন,সীরাতের অধ্যয়ন এবং চর্চার গুরুত্ব অপরিসীম। আর সেটা যদি হয় বক্তৃতার মঞ্চেও , তাহলে কথায় নেই। বিশেষ করে চলমান পরিস্থিতিতে রাসুলে আরাবি (সাঃ) এর সামগ্রিক জীবনী জানা থাকা একজন মুমিনের আবশ্যিক কর্তব্য।এটা রাসূলের আনুগত্যের পূর্বশর্ত। রাসূল কে ভালোবাসতে হলে সীরাত পড়তে হবে। পাশাপাশি মানুষের উত্থান-পতন সীরাত অনুসরণের সাথে জড়িত।

 

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here