ফ্রান্সে রাষ্ট্রীয়ভাবে হযরত মুহাম্মদ সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে অবমাননার প্রতিবাদে বাংলাদেশের ইসলামি দল ও সংগঠনগুলোর  ফরাসি পণ্য বয়কট ও ফ্রান্স দূতাবাস ঘেরাও কর্মসূচী আন্তর্জাতিক মিডিয়ায় প্রশংসিত হয়েছে। আজ মঙ্গলবার বিশ্বের অনেক গণমাধ্যমে ওঠে আসে বাংলাদেশের বিক্ষোভের খবর।

তুরস্কের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম আনাদুলু এজেন্সিতে শিরোনাম করা হয়, ‘ফ্রান্স বয়কটের আন্দোলন বাংলাদেশে গতি পেয়েছে’। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আলজাজিরা শিরোনাম করেছে, ‘হাজার হাজার বিক্ষোভকারী বাংলাদেশে ফ্রান্সের পণ্য বয়কটের আহ্বান জানিয়েছে’। ফ্রান্সের সংবাদমাধ্যম ফ্রান্স২৪ শিরোনাম করেছে, ‘বিশ্বনবীর ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশের প্রতিবাদে হাজার হাজার বিক্ষোভকারী ফ্রান্সের পণ্য বয়কটের আহ্বান জানিয়েছে।’

আনাদুলুর প্রতিবেদনে বলা হয়, মঙ্গলবার বাংলাদেশে  হাজার হাজার বিক্ষোভকারী ঢাকায় ফ্রান্সের দূতাবাসের দিকে যাত্রা শুরু করে। এ সময় সবাইকে ফ্রান্সের পণ্য বয়কটের আহ্বান জানানো হয়।

আলজাজিরার খবরে বলা হয়, ঢাকায় আন্দোলনকারীরা ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রোঁর প্রতিকৃতি তৈরি করে তাতে আগুন লাগিয়ে দিয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছে।

ফ্রান্স২৪ বলছে, পুলিশের ধারণা ৪০ হাজার লোক বিক্ষোভে অংশগ্রহণ করেছে। ঢাকায় ফ্রান্সের দূতাবাস অভিমুখে যাওয়ার সময় পুলিশ তাঁদের বাধা প্রদান করে। কোনো রকম সহিংসতা ছাড়াই পুলিশের বাধার মুখে তারা ঘেরাও কর্মসূচি মাঝপথে সমাপ্ত করতে বাধ্য হন।

ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসি ইংরেজি শিরোনাম করেছে, ফরাসি পণ্য বর্জনের আহ্বান জানিয়ে ঢাকায় বিশাল বিক্ষোভ। খবরে বলেছে, ফ্রান্সের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থান নিয়ে ফরাসী পণ্য বর্জনের দাবিতে কয়েক হাজার মানুষ বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকায় অবস্থিত ফ্রান্সের দূতাবাস অভিমুখে মিছিল করেছে।  তারা রাষ্ট্রপতি ইমমানুয়েল ম্যাক্রনের নিন্দা করেছে। তবে পুলিশ মিছিলকারীদের ফরাসী দূতাবাসে পৌঁছতে বাধা দিয়েছে।

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here