ছবি : সংগৃহীত

লাখো মানুষের উপস্থিতিতে হেফাজতে ইসলামের আমির আল্লামা শাহ আহমদ শফীর রহ. এর নামজে জানাযা অনুষ্ঠিত। দক্ষিণ এশিয়ার প্রাচীনতম দ্বীনি প্রতিষ্ঠান আল-জামেয়াতুল ইসলামিয়া দারুল উলুম মুইনুল ইসলাম মাদরাসা প্রাঙ্গণ এবং মাদরাসা প্রাঙ্গণের বাইরে প্রায় তিন কিলোমিটার জুড়ে রাস্তায় লাখো মানুষ সামিল হন তাতে। অতঃপর ওসিয়ত মোতাবেক জামিয়া প্রাঙ্গণেই দাফন করা হয় শাইখুল ইসলাম আল্লামা আহমদ শফীকে। 

বাদ জোহর দুপুর ২:১০ মিনিটের দিকে আহমদ শফীর রহ. নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। এতে হযরতের বড় ছেলে চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলার পাখিরটিলা কওমি মাদরাসার পরিচালক মাওলানা মোহাম্মদ ইউসুফ ইমামতি করেন। 

হযরতের ইন্তেকালের খবর শুনে ঢাকা আজগর আলী হাসপাতাল চত্বরে জমায়েত হতে থাকে হাজারো মানুষ। অতঃপর যখন জানাজার সূচি ঘোষণা করা হয় এই মানব স্রোত ছুটতে থাকে হাটহাজারী থেকে। ফজরের পর পরই হাটহাজারী মাদ্রাসা ভবন মসজিদ এবং আশপাশের এলাকা লোকে লোকারণ্য হয়ে যায়।  বেলা বাড়তে থাকার সঙ্গে সঙ্গে লোকের চাপ বাড়তে থাকে। ঠিক যোহরের সময় হাটহাজারী ও তার আশপাশ এলাকায় তিল ধারণের ঠাঁই ছিল না। ধারণা করা হয় এই জানাজায় কমপক্ষে সাত লক্ষ লোকের সমাগম হয়েছে।

 সারা দেশ থেকে আগত শীর্ষ ওলামা-মাশায়েখ এবং রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব জানাজায় অংশগ্রহণ করেন।  

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here