বাংলাদেশসহ বিভিন্ন দেশের নাগরিকদের সুবিধার্থে ‘পোর্ট-ভিসা ব্যবস্থা’ তথা ‘অন-অ্যারাইভাল ভিসা’ (বিমাবন্দরে নামার পর দেয়া ভিসা) দেয়ার ব্যবস্থা চালু করেছে চীন সরকার। অর্থাৎ এখন থেকে শর্ত সাপেক্ষে চীনের ‘অন-অ্যারাইভাল’ ভিসা পাবেন বাংলাদেশিরা।

বৃহস্পতিবার (২২ নভেম্বর) দেশটির পোর্ট-ভিসা ব্যবস্থা সম্পর্কে ব্যাখ্যা দিয়ে পাঠানো এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানিয়েছে ঢাকাস্থ চীনা দূতাবাস। এর আগে ঢাকায় দুই দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ের এক বৈঠকে চীনের জননিরাপত্তা বিষয়ক মন্ত্রী ঝাও কেঝি এ আশ্বাস দিয়েছিলেন।

এ ব্যবস্থা অনুসারে বিদেশিরা শর্ত সাপেক্ষে চীনের বিমানবন্দরে পৌঁছে পোর্ট ভিসার জন্য আবেদন করতে পারবেন। ভিসার মেয়াদ হবে সর্বোচ্চ ৩০ দিন। বাংলাদেশিরাও প্রয়োজনীয় শর্ত পূরণ এবং সংশ্লিষ্ট কাগজপত্র দাখিল করে চীনের বিমানবন্দরে পোর্ট ভিসার আবেদন করতে পারবেন।

ঢাকায় চীনা দূতাবাসের রাজনৈতিক কাউন্সিলর চেন ওয়েই-এর বরাত দিয়ে বিবৃতিতে বলা হয়, বাংলাদেশসহ বিভিন্ন দেশের নাগরিকদের সুবিধার্থে ‘পোর্ট-ভিসা ব্যবস্থা’ তথা ‘অন-অ্যারাইভাল ভিসা’ দেয়ার ব্যবস্থা চালু করেছে চীন সরকার। চীনের বহিরাগমন ও প্রবেশে প্রশাসন আইন-অনুযায়ী এ ব্যবস্থা কোনো নির্দিষ্ট রাষ্ট্রের নাগরিকদের জন্য করা হয়নি।

অারও বলা হয়, মানবিক কারণে চীনে জরুরি প্রবেশ, আমন্ত্রণক্রমে জরুরি বাণিজ্যিক কাজে, প্রকল্পের মেরামত বা অন্য কোনো জরুরি কাজে এবং পর্যটন এজেন্সির মাধ্যমে চীন ভ্রমণে আগ্রহী বিদেশিদের সুবিধার্থে এ পোর্ট-ভিসা ব্যবস্থা চালু করা হয়েছে।

এর অাগে গত ২৬ অক্টোবর বাংলাদেশ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণায়ের সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ ও চীনের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠকে চীনের ‘অন-অ্যারাইভাল’ ভিসা সম্পর্কে আশ্বাস দিয়েছিলেন চীনের জননিরাপত্তা বিষয়কমন্ত্রী ও স্টেট কাউন্সিলর ঝাও কেঝি।

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here