মুফতি সাখাওয়াত হোসাইন সমাজকল্যাণ মন্ত্রী রাশেদ খান মেননের “মদিনা সনদেই মহানবী ধর্মনিরপেক্ষতার কথা বলেছেন” এমন বক্তব্যের তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানিয়ে বলেন- আজ কতিপয় জ্ঞানপাপী মদিনা সনদের ভুল ব্যাখ্যা করে ইসলামের মূলে কুঠারাঘাত করছে।

তিনি বলেন, মদিনার সনদে স্বাধীনভাবে ধর্ম পালনের কথা বলা হয়েছে আর ধর্মনিরপেক্ষতা হচ্ছে ধর্মহীনতা। কেননা, ধর্মনিরপেক্ষতার মূল দাবি হচ্ছে ধর্ম কেবল ব্যক্তি জীবনে থাকবে, রাষ্ট্র কিংবা সমাজে ধর্মের কোন চর্চা থাকবে না। অথচ একজন মুসলমান হিসেবে আমাকে অবশ্যই এ কথা মানতে হবে- ইসলাম হচ্ছে একটি পূর্ণাঙ্গ জীবন ব্যবস্থা। ব্যক্তি জীবন থেকে শুরু করে রাষ্ট্রীয় জীবনের প্রত্যেকটা পর্যায়ে ইসলাম প্র্যাকটিস করতে হবে।

তিনি আরো বলেন- জ্ঞানপাপীরা কখনোই পূর্ণাঙ্গ মদিনা সনদ পড়ে দেখেনা। মদিনা সনদে একথা স্পষ্ট ভাবে উল্লেখ আছে যে, মদিনা রাষ্ট্রের প্রধান হবেন মহানবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এবং রাষ্ট্রের বিরোধপূর্ণ সকল বিষয় সমাধানের জন্য আল্লাহ ও তাঁর রাসূল মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের হাতে ন্যস্ত হবে।

তাইতো মহানবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম মাদানী জিন্দেগির ১০ টি বৎসর ইসলামের নির্দেশনা অনুযায়ী ব্যক্তি সমাজ ও রাষ্ট্র জীবনের সকল সমস্যার সমাধান সফলভাবে করেছেন। আর যেহেতু ইসলাম পূর্ণাঙ্গ জীবন ব্যবস্থা হওয়ার পাশাপাশি সাম্য ও ন্যায়ের একমাত্র অবিকৃত আসমানি ধর্ম সেহেতু ইসলামী বিধি-বিধান দিয়ে যে কোন ধর্মের লোকদের বিরোধ সমাধানে কোনো অসুবিধার সম্মুখীন হতে হয়নি।

তিনি বলেন, যেখানে মদিনার সনদ থেকেই এ কথা প্রমাণিত হয় যে, মহানবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম কোরআন মোতাবেক রাষ্ট্র পরিচালনা করেছেন, সেখানে মদিনার সনদের দোহাই দিয়ে ধর্মনিরপেক্ষতার পক্ষে বক্তব্য দেয়া ইসলাম ও মুসলমানদের বিরুদ্ধে গভীর ষড়যন্ত্রের ইঙ্গিত বহন করে।

আজ শাসকগোষ্ঠী নিজেকে মুসলিম দাবি করা সত্ত্বেও কোরআন সুন্নাহ কে উপেক্ষা করে মানব রচিত বিধান দিয়ে দেশ পরিচালনা করে উল্টো মদিনা সনদের প্রসঙ্গ টেনে সাধারণ মুসলমানদেরকে বিভ্রান্ত করছে বলে অভিযোগ করে তিনি বলেন, ওরা মদিনার সনদের দোহাই দিয়ে মূলত দেশের মানুষকে ইসলামহীন করতে চায়।

মুফতি সাখাওয়াত হোসাইন আরো বলেন, মন্ত্রী তার বক্তৃতায় ওহাবী মতবাদের কথা বলেছেন। অথচ এদেশে ওহাবী মতবাদ নামে কোন মতবাদ নেই। এতে প্রমাণিত হয় তিনি ইসলাম মুসলমান ও আলেম ওলামাদের প্রতি বিদ্বেষ থেকেই এমন কথা টেনে এনেছেন। এবং এ বক্তব্য ওই মতবাদ সম্পর্কে তার অজ্ঞতাকেই প্রকাশ করে দিয়েছে।

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here