রাজধানীর আশকোনা হজ ক্যাম্পে কোয়ারেন্টাইনে থাকা ইতালিফেরতরা বিক্ষোভ ও হট্টগোল করছেন। অন্যদিকে ক্যাম্পের বাইরে তাদের স্বজনেরাও বিক্ষোভে নেমে পড়েছেন। তাদের শান্ত করতে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী হিমশিম খাচ্ছে।

ইতালিফেরতদের অভিযোগ, হজ ক্যাম্পে আনার পর তাদের কর্তৃপক্ষ কিছুই বলছে না। শুধু পানি ছাড়া তারা কোনো খাবার পাচ্ছেন না। এ সময় তারা বাড়িতে কোয়ারেন্টাইনে থাকতে চান বলে দাবি তোলেন।

হজ ক্যাম্পের গেটে বিক্ষোভরত ইতালিফেরত এক ব্যক্তি সাংবাদিকদের বলেন, আমাদের রোমে পরীক্ষা করা হয়েছে। পরে দুবাইয়ে আরেক দফা পরীক্ষা করা হয়েছে। কিন্তু সেখানে করোনাভাইরাসের কোনো আলামত পাওয়া যায়নি। বাংলাদেশে আসার পর এখন এখানে রাখা হয়েছে। কিন্তু এখনো কোনো স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়নি।

তবে শনিবার দুপুরে সংবাদ সম্মেলন করে সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইন্সটিটিউটের (আইইডিসিআর) পরিচালক অধ্যাপক ডা. মীরজাদি সেব্রিনা ফ্লোরা জানান, হজ ক্যাম্পে তাদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে কারও শরীরেই করোনাভাইরাস পাওয়া যায়নি। প্রাথমিকভাবে কারো দেহে এ ভাইরাস ধরা না পড়লেও তাদের দুই সপ্তাহে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হবে।

এর আগে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেকও সচিবালয়ে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে বলেন, ইতালিফেরত বাংলাদেশিদের কেউ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত নন। স্বাস্থ্য পরীক্ষায় করোনাভাইরাস সংক্রমনের কোনো ঝুঁকি দেখা না গেলে তাদের হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হবে।

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here