ফ্রান্সে রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের ব্যঙ্গচিত্র বানিয়ে অবমাননা এবং ইসলাম ও নবীজি সা. কে নিয়ে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রোঁর বিতর্কিত মন্তব্যের পর ফরাসি পণ্য বয়কটের ডাক দিয়েছেন বিশ্বের অন্যতম প্রভাবশালী ইসলামী ব্যক্তিত্ব পাকিস্তানের প্রখ্যাত আলেম মুফতি তাকী উসমানী।

গতকাল এক টুইট বার্তায় তিনি ফ্রান্সের পণ্য বয়কটের আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, ‘রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের বিরুদ্ধে ফ্রান্স ও এর রাষ্ট্রনায়কের ঘৃণ্য আচরণের পরেও আমরা কি ফরাসি পণ্য ক্রয়-বিক্রয়, ব্যবহার এবং আমদানি চালিয়ে যাব?’

‘এই দেশের নেতারা তখনই একটি শিক্ষা নিবে, যখন পুরো ইসলামী বিশ্ব তাদের পণ্য বর্জন করবে। আমরা নিজেদের জায়গা থেকে ফ্রান্সের অসভ্যতার বিরুদ্ধে কমপক্ষে এতটুকু প্রতিবাদ তো জানাতেই পারি।’

নবীজি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে নিয়ে ব্যঙ্গাত্মক কার্টুন প্রকাশের প্রতিবাদে ইতিমধ্যেই বাংলাদেশ, কুয়েত, কাতারসহ পুরো মুসলিম বিশ্বেই ফরাসি পণ্য বয়কটের হিড়িক পড়ে গেছে। দোকান থেকে ফরাসি পণ্য সরিয়ে ফেলছে অনেক খ্যাতনামা চেইন শপসহ বহু ব্যবসা প্রতিষ্ঠান।

মহানবী হযরত মুহাম্মদকে (সা.) নিয়ে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রোঁর বিতর্কিত মন্তব্যের কারণে ফরাসি পণ্য বয়কটের ডাক দিয়েছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব এরদোগান। এমানুয়েল ম্যাক্রোঁর ইসলামবিদ্বেষী মনোভাবের তীব্র সমালোচনা করে সোমবার প্রেসিডেন্ট এরদোগান বিশ্বের সকল মুসলিমের প্রতি এই আহ্বান জানান।

ফরাসি পণ্য বয়কটের আহ্বান জানিয়ে প্রেসিডেন্ট এরদোগান বলেন, কখনই কোনো ফরাসি ব্র্যান্ডকে সহায়তা করবেন না অথবা ফ্রান্সের লেবেলযুক্ত পণ্যসামগ্রী কিনবেন না।

করোনা মহামারীকালে এই বয়কটের বিশ্বব্যাপী ফরাসি বাণিজ্যে সুদূরপ্রসারী প্রভাব আঁচ করতে পেরে আরব দেশগুলোর প্রতি পণ্য বয়কট বন্ধের অনুরোধ জানিয়েছে ফ্রান্স। রোববার এক বিবৃতিতে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এ অনুরোধ জানায়।

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here