মিসরের একটি মসজিদে জুমার নামাজে খুতবা প্রদানের সময় কালিমা পড়তে পড়তে খতিবের ইন্তেকাল হয়েছে। ইন্নালিল্লাহি ওয়াইন্না ইলাইহি রাজিউন।

গত শুক্রবার ( ৩১ জানুয়ারি) ৬৪ বছর বয়সী শায়খ আবুল আজম ত্বহা নামের ওই খতিব উপস্থিত মুসল্লিদের সামনে খুতবা পাঠরত অবস্থায়ই ইন্তেকাল করেন।

মিসরের ওররাক রাজ্যের গিজায় অবস্থিত মসজিদ আল হাবিবে দীর্ঘদিন যাবত খতিবের দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন তিনি।

সদ্যপ্রয়াত এই খতিব বিতগ প্রায় চল্লিশ বছর যাবত একজন সফল দাঈ হিসেবে মিসরের বিভিন্ন অঞ্চলে ইসলামের দাওয়াতের কাজ করে মানুষের মাঝে ব্যপক জনপ্রিয় ব্যক্তি হয়ে উঠেছিলেন।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তার ইন্তেকালের মূহুর্তের একটি অডিওক্লিপ ভাইরাল হয়েছে- এতে শোনা যায়, কালিমা পড়তে পড়তে হঠাৎ তিনি নির্বাক হয়ে যান। মুসল্লিরা জানান, এরপরই মসজিদে উপস্থিত মুসল্লিদের সামনেই খুতবার মিম্বর থেকে নিচে পড়ে যান এবং ইন্তেকাল করেন।

প্রত্যক্ষদর্শীদের সূত্রে আরও জানা যায়, কালিমা পাঠ করার আগে শায়খ আবুল আজম ত্বহা পবিত্র কুরআনে কারিমের সূরা নিসার ৩৬ নাম্বার আয়াত পাঠ করেন- যার অর্থ: ‘তোমরা আল্লাহর ইবাদত করো, আর তাঁর সঙ্গে কোনকিছু শরিক করো না’।

এই ঘটনার পরে শুক্রবার আসরের পরে অনুষ্ঠিত তার জানাজার নামাজে অসংখ্য মানুষের সমাগম ঘটে। সৌভাগ্যবান মানুষটিকে এক নজর দেখতে দূরদূরান্ত থেকে মানুষজন ছুটে আসেন।

শায়খ আবুল আজম ত্বহার পরিবার জানায়, ওইদিন পর্যন্ত তিনি পরিপূর্ণ সুস্থ ছিলেন। প্রতিদিনের অভ্যাস মতো খুব ভোরে ঘুম থেকে জেগে তাহাজ্জুদ নামাজ আদায় করেন। ফজর আদায় করার পরে তিন পারা কুরআন শরিফ তেলাওয়াত করে পরিবারের সবার সঙ্গে সকালের নাশতা সারেন এবং জুমার প্রস্তুতির জন্য গোসল করে বাসা থেকে মসজিদে আসেন। অতঃপর তার ইন্তেকাল হয়।

শায়খ আবুল আজম ত্বহার ইন্তেকালকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নেটিজেনরা ‘সৌভাগ্যের মৃত্যু’ আখ্যা দিয়েছেন। তারা লিখেছেন, এরচেয়ে সুন্দর বিদায় আর নেই; জুম্মার দিনে, মসজিদের মিম্বরের ওপরে, একত্ববাদের কালিমা পড়তে পড়তে…

আল জাজিরা আরবি

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here