ফাইল ফটো

ভারতে হিন্দুত্ববাদী উগ্রপন্থী কয়েকটি সংগঠনের বিক্ষোভের জেরে রাজস্থানের আজমীর শহরে বাতিল করে দেওয়া হয়েছে অভিনেতা কথিত মুসলিম নাসিরুদ্দিন শাহের একটি অনুষ্ঠান।

আজমীর সাহিত্য উৎসবে শুক্রবারই মূল ভাষণ দেওয়ার কথা ছিল মি. শাহ-র।

এই সপ্তাহে দেওয়া একটি সাক্ষাতকারে মি. শাহ মন্তব্য করেছিলেন যে ভারতে একজন পুলিশ অফিসারের মৃত্যুর থেকেও বেশি গুরুত্ব পাচ্ছে গরুর মারা যাওয়ার ঘটনা।

ডিসেম্বরের গোড়ায় উত্তর প্রদেশের বুলন্দশহরে গো-হত্যাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ ছড়ালে এক পুলিশ অফিসার নিহত হন। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী তারপরেও কর্মকর্তাদের একটি বৈঠকে বেশি গুরুত্ব দিয়েছিলেন যে কীভাবে গো-হত্যা হল, সেই তদন্তের ওপরে। আর পুলিশ অফিসারের মৃত্যুকে তিনি বলেছিলেন, “দুর্ঘটনা”।

একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন আয়োজিত “কারওয়ান-এ-মুহব্বত” নামের একটি অনুষ্ঠানের অংশ হিসাবে নাসিরুদ্দিন শাহ একটি ভিডিও সাক্ষাতকার দেন, যেটি গত সোমবার ইউটিউবে আপলোড করা হয়েছে।

সেখানেই মি. শাহ উত্তরপ্রদেশের হিংসাত্মক ঘটনাটি নিয়ে ওই মন্তব্য করেন।

তারপর থেকেই দক্ষিণপন্থী এবং হিন্দুত্ববাদী সংগঠনগুলি তার ব্যাপক সমালোচনা শুরু করেছে। (বিবিসি)

কারওয়ান-এ-মুহব্বত অনুষ্ঠানের ওই ভিডিও সাক্ষাতকারে নাসিরুদ্দিন শাহ আরও মন্তব্য করেছিলেন, “আমি আর আমার স্ত্রী দুজন দুই ধর্মের থেকে এসেছিলাম। কিন্তু আমাদের সন্তানদের কোনও ধর্মই পালন করাই নি আমরা। কিন্তু এখন চিন্তা হয় যে কাল যদি একদল মানুষ আমার সন্তানদের ঘিরে ধরে জানতে চায় যে ওরা হিন্দু না মুসলমান, তাহলে তো তারা কোনও জবাব দিতে পারবে না ! এই পরিস্থিতিটার কোনও উন্নতি খুব তাড়াতাড়ি হবে বলে মনে হয় না। একবার যে জ্বিন বোতল থেকে বেরিয়ে গেছে, তাকে আবার বোতলে ফেরত পাঠানো কঠিন।”

 

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here