সিরিয়ার হাজিন শহরে বোমা মেরে একটি মসজিদ গুড়িয়ে দিয়েছে মার্কিন নের্তৃত্বাধীন বাহিনী। ছবি: এনডিটিভি।

সিরিয়ার হাজিন শহরে এবার বোমা মেরে একটি মসজিদ গুড়িয়ে দিয়েছে মার্কিন নের্তৃত্বাধীন বাহিনী। তবে ওই মসজিদে আইএসের কার্যক্রম চলছিলো বলে দাবি করেছে তারা। শনিবার মসজিদটি গুড়িয়ে দেয়া হয়। এনডিটিভি।

সিরিয়ায় বর্তমানে আইএসের নিয়ন্ত্রণে থাকা সবচেয়ে বড় শহর হাজিন। মার্কিন নের্তৃত্বাধীন সিরিয়ান ডেমোক্রেটিক ফোর্সেস ও কুরদিশ মিলিশিয়া ইউফ্রেটিস নদীর তীরবর্তী শহরটিকে আইএসমুক্ত করতে যুদ্ধ চালিয়ে যাচ্ছে।

হামলায় মসজিদ গুড়িয়ে দেয়া বিষয়ে মার্কিন নের্তৃত্বাধীন বাহিনীর দাবি, ১৬ জন সশস্ত্র আইএস জঙ্গী মসজিদটিকে ঘাঁটি হিসেবে ব্যবহার করছিলো।

মার্কিন সেনাবাহিনীর দেয়া এক বিবৃতিতে বলা হয়, ‘এই হামলার মাধ্যম এসব সন্ত্রাসীকে হত্যা করা হয়েছে। তারা ছিলো একটি বড় হুমকি। তারা যেকোন সময় হামলার জন্য প্রস্তুত ছিলো।’

তবে দেইর আল-জর প্রদেশে মার্কিন নের্তৃত্বাধীন বাহিনীর মুখপাত্র লিলওয়া আল-আবেল্লাহ বলেন, ‘খুব দ্রুত আমরা পুনরায় হাজিন শহরের নিয়ন্ত্রণ গ্রহণ করবো।’

২০১৭ সালের পর থেকে সিরিয়ায় নিজেদের নিয়ন্ত্রণে থাকা এলাকাগুলো হারাতে থাকে আইএস। বর্তমানে বেশিরভাগ এলাকাই তাদের দখলে নেই। একদিকে মার্কিন নের্তৃত্বাধীন বাহিনী ও অপরদিকে রাশিয়া সমর্থিত সিরিয়া সেনাবাহিনীর হামলায় পর্যুদস্ত হয়েছে আইএস।

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here