ভারতে চলমান কৃষক আন্দোলনের প্রতি সমর্থন জানিয়েছে দেশটির পরিবহন শ্রমিকরা। বুধবার অল ইন্ডিয়া মোটর ট্রান্সপোর্ট কংগ্রেসের পক্ষ থেকে হুমকি দেয়া হয়েছে, যদি সরকার কৃষকদের দাবি মেনে নেওয়া না হয়, তাহলে প্রথমে উত্তর ভারত এবং পরবর্তীকালে পুরো দেশ জুড়ে প্রয়োজনীয় পণ্য চলাচল বন্ধ করে দেয়া হবে। এ খবর জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমস।

সংগঠনটির সভাপতি কুলতারান সিং আতওয়াল জানিয়েছেন, সেপ্টেম্বরে তিনটি কৃষি আইন পাস হয়েছে, সেগুলো নিয়ে কৃষকদের সঙ্গে কোনো সমাধান না হলে তারা রাস্তায় নামবেন। এই সংগঠন প্রায় এক কোটি ট্রাক শ্রমিকের প্রতিনিধিত্ব করে।

এই পরিস্থিতিতে বিপাকে পড়েছে বিজেপি সরকার। আন্দোলনরত ভারতীয় কৃষকরা কার্যত দিল্লি ঘিরে ফেলেছে। পাঞ্জাব ও হরিয়ানা থেকে আরও কৃষক এই অবরোধে যোগ দিতে ইতোমধ্যে রওনা দিয়েছে। দিল্লি কার্যত বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ার অবস্থায় রয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে মঙ্গলবার ভারত সরকারের তিন মন্ত্রী কৃষকদের একটি প্রতিনিধি দলের সঙ্গে আলোচনায় বসে। তবে সেই আলোচনাও ব্যর্থ হয়েছে।

কৃষকদের দাবি, সরকারকে নতুন কৃষি আইন আগে বাতিল করতে হবে। আর ন্যূনতম সংগ্রহ মূল্য নিয়ে আইন করতে হবে, যাতে বেসরকারিভাবে যারা কৃষকদের কাছ থেকে ফসল কেনেন, তারা এই আইন মানতে বাধ্য থাকেন। সরকার অবশ্য কোনো দাবি মানার ইঙ্গিত দেয়নি।

সংগঠনটির সভাপতি কুলতারান সিং আতওয়াল বলেন, আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি সরকার যদি এরপরও কৃষকদের দাবি না মানে তাহলে ভারতজুড়ে আমরা চাকা বন্ধ কর্মসূচি পালন করব।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যমের প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, কৃষকরা এখনও দিল্লি ঘিরে বসে আছেন। দিল্লিতে ঢোকার আরও একটি রাস্তা বুধবার বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। এই প্রতিবাদীদের দল ভারি করতে পাঞ্জাব, হরিয়ানা ও উত্তর প্রদেশ থেকে আরও কৃষক এসে পৌঁছেছেন।

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here