ইসলামি সহযোগিতা সংস্থার (ওআইসি) পররাষ্ট্র মন্ত্রীদের কাউন্সিল সিএফএম-এর ৪৭তম অধিবেশন বসবে ২৭ নভেম্বর, নাইজারের রাজধানী নিয়ামিতে। আন্তর্জাতিক বিচার আদালতে (আইসিজে) গাম্বিয়ার দায়ের করা মামলার খরচ চালাতে তহবিল সংগ্রহের সিদ্ধান্ত নিয়েছে ওআইসি।

দুদিনব্যাপী ওই অধিবেশনে যোগ দিতে বুধবার সকালে বিমানে চড়বেন পররাষ্ট্র মন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন। তিনি ইন্টারন্যাশনাল কোর্ট অভ জাস্টিস-এ আইনি লড়াই চালিয়ে যেতে গাম্বিয়ার জন্য তহবিল গঠনের প্রস্তাব তুলে ধরবেন।

স্বভাবতই সেই তহবিলে বাংলাদেশও একটি বরাদ্দ দেবে, সে কথার উল্লেখ থাকবে পররাষ্ট্র মন্ত্রীর বক্তৃতায়। রোহিঙ্গাদের নির্বিচারে খুন ও দেশত্যাগে বাধ্য করায় মিয়ানমারের বিরুদ্ধে ২০১৯ সালের ১১ নভেম্বর আন্তর্জাতিক বিচার আদালতে (আইসিজে) মামলা করে গাম্বিয়া।

ওআইসি সচিবালয় এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, পররাষ্ট্র মন্ত্রীদের সম্মেলনে ওআইসির সদস্য নয়, এমন দেশগুলোতে সংখ্যালঘু মুসলমানদের হাল-হকিকত নিয়ে আলোচনা হবে। ফিলিস্তিন পরিস্থিতিসহ সারাবিশ্বে মুসলমানদের ওপর চলতে থাকা আগ্রাসন-নির্যাতন নিয়ে কথা বলবেন ওআইসি’র ৪৭ সদস্য রাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রীরা।

আলোচনায় স্থান পাবে রাজনৈতিক, মানবিক, অর্থনৈতিক ও সামাজিক বিভিন্ন ইস্যু। ইসলামভীতি, সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ও উগ্রপন্থা।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, সিএফএম সম্মেলনের ফাঁকফোকরেই  সৌদি আরব, মালদ্বীপ ও আফগানিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রীর সঙ্গে পৃথক বৈঠক সেরে নেবেন পররাষ্ট্র মন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন। এই তালিকায় সংযুক্ত আরব আমীরাত ও কুয়েতের নামও রয়েছে।

মন্ত্রীর সঙ্গে নাইজার সফরে যাচ্ছেন পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ মোমেন ও সৌদিতে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটওয়ারী।

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here