ফ্রান্সের উত্তরাঞ্চলের একটি মসজিদকে হুমকিমূলক বার্তা দেয়া হয়েছে। মসজিদের চিঠির বাক্সে বার্তাটি রেখে যাওয়া হয়।

যাতে আরব, তুর্কি ও সেখানকার মুসল্লিদের হত্যার হুমকিসহ অবমাননামূলক কথা বলা হয়েছে। ইসলাম ও ইনফো ওয়েবসাইটের বরাতে বার্তা সংস্থা আনাদলু এমন খবর দিয়েছে।

চিঠিতে বলা হয়, যুদ্ধ শুরু হয়ে গেছে। তোমাদের দেশ থেকে বের করে দেব। সামুয়েলের মৃত্যুর কড়ায়-কণ্ডায় হিসাব নেব।

শ্রেণিকক্ষে মহানবীকে (সা.) বিদ্রূপ করে কার্টুন প্রদর্শন করায় সামুয়েল পাটি নামের ওই শিক্ষককে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে।

মসজিদকে দেয়া হুমকির নোটিশে হিজাব মুসলিম নারীদের নিয়েও কটূক্তি করা হয়েছে। তাদের অশ্রাব্য ভাষায় গালি দেয়া হয়েছে বলে খবরে জানা গেছে।

চলতি মাসের শুরুতে দেশটির মুসলমানদের বিচ্ছিন্নতাবাদী হিসেবে অভিযুক্ত করেন ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রন। বিশ্বজুড়ে ইসলাম সংকটে আছে বলেও তিনি মন্তব্য করেন।

ইসলাম ও মুসলমানদের নিয়ে ম্যাক্রনের উসকানিমূলক বক্তব্যে সারা বিশ্বের মুসলমানরা ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন। বেশ কয়েকটি দেশে ফরাসি পণ্য বয়কটেরও ডাক দেয়া হয়েছে।

ম্যাক্রনের মানসিক চিকিৎসা দরকার বলে মন্তব্য করেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এরদোগান।

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here