ফ্রান্সের উত্তরাঞ্চলীয় বন্দর শহর লে হাভরেতে একটি পরিত্যক্ত ভবনে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। শনিবার (২৪ অক্টোবর) এ ঘটনা ঘটে। এতে হতাহতের কোনো খবর এখন পর্যন্ত পাওয়া যায়নি।

পুলিশ ও স্থানীয়দের বরাতে তুরস্কের জাতীয় দৈনিক ডেইলি সাবাহ’র প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, অগ্নিকাণ্ডের কারণে কালো ধোঁয়ার সৃষ্টি হয়েছে। ঘটনাস্থলের আশপাশের ভবন থেকে লোকজনকে সরিয়ে নেয়া হয়েছে।

লে হাভরে সাইন নদীর মোহনায় অবস্থিত। এটি ফ্রান্সের বৃহত্তম বন্দর শহরগুলোর একটি।

প্রসঙ্গত, গত ১৬ অক্টোবর ফ্রান্সের প্যারিসের শহরতলী এলাকায় নবীজি সা.কে অবমাননা করায়  এক স্কুলশিক্ষককে গলা কেটে হত্যা করা হয়। এ ঘটনার পর ফ্রান্সের পুলিশ দেশটির অন্তত ৫০টি মসজিদ ও মুসলিম-অধ্যুষিত এলাকায় ভয়াবহ অভিযান চালায়।

সাড়ে পাঁচ বছর আগে হজরত মোহাম্মদ (সা.)-এর বিতর্কিত কার্টুন ছাপানোর পর ফ্রান্সের ব্যঙ্গাত্মক ম্যাগাজিন শার্লি এবদোতে হামলার ঘটনা ঘটে। আবারও সেটি ছাপিয়েছে ম্যাগাজিনটি।

এ নিয়ে সমালোচনার ঝড় উঠলেও এর বিপক্ষে অবস্থান নিয়েছেন ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ।
প্রেসিডেন্ট জানিয়েছেন, হজরত মুহাম্মদের (সা.) বিতর্কিত কার্টুন ছাপানো নিয়ে নিন্দা জানাবেন না। একই সঙ্গে এসব হামলার সঙ্গে জড়িতদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার ঘোষণা দেন তিনি।

মোহাম্মদ (সা.)-এর কার্টুন বন্ধে ব্যবস্থা না নেয়া এবং শার্লি এবদোর পক্ষে অবস্থান নেয়ার পর মুসলিম বিশ্বে তীব্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। ক্ষোভে ফেটে পড়ছে মুসলিম দেশগুলো।

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here