আফগানিস্তানের তালেবানের সঙ্গে শান্তিচুক্তি সই করার পরও দেশটির দক্ষিণাঞ্চলে তাদের অবস্থানে বিমান হামলা চালিয়েছে মার্কিন বাহিনী।

আফগানিস্তান টাইমসের খবরে ব্লা হয়,  তালেবানের পক্ষ থেকে ওই এলাকায় বড় ধরনের অভিযান চালানোর পর এ বিমান হামলা চালানো হয়।

আফগানিস্তানে মোতায়েন মার্কিন বাহিনীর কমান্ডার কর্নেল সনি লিজেট বলেন, তালেবানের হামলা থেকে আফগান সেনাবাহিনীকে রক্ষা করার লক্ষ্যে গত দুদিনে হেলমান্দ প্রদেশে তালেবানের কয়েকটি অবস্থানে বিমান হামলা চালিয়েছে মার্কিন সেনাবাহিনী।

তিনি আরও বলেন, তালেবানের যে কোনো ধরনের হামলা থেকে আফগান সেনাবাহিনীকে রক্ষা করতে সহযোগিতা করে যাবে মার্কিন সেনাবাহিনী।

এদিকে আফগানিস্তানে মোতায়েন মার্কিন ও ন্যাটো বাহিনীর কমান্ডার জেনারেল স্কট মিলার অবিলম্বে হামলা বন্ধ করতে তালেবানের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, তালেবানকে অবিলম্বে হেলমান্দ প্রদেশে হামলা এবং সারা দেশে অভিযান বন্ধ করতে হবে।

এ ধরনের অভিযান তালেবান-মার্কিন চুক্তির পরিপন্থী এবং চলমান দোহা শান্তি আলোচনাকে অবজ্ঞা করার শামিল।

আফগানিস্তানে তালেবানের বিরুদ্ধে প্রায় দুই দশক যুদ্ধ করার পর গত ফেব্রুয়ারিতে তালেবানের  সঙ্গে শান্তিচুক্তি সই করে আমেরিকা।

চুক্তিতে তালেবানের পক্ষ থেকে নিরাপত্তার নিশ্চয়তার বিপরীতে আফগানিস্তান থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের কথা বলা হয়। সেই সঙ্গে দেশে পরিপূর্ণ শান্তি প্রতিষ্ঠা করার লক্ষ্যে আফগান সরকারের সঙ্গে শান্তি আলোচনায় প্রতিশ্রুতিবদ্ধ হয় তালেবান।

সেই প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নের অংশ হিসেবে কাতারের রাজধানী দোহায় কাবুল সরকারের সঙ্গে তালেবানের শান্তি আলোচনা চলমান থাকাবস্থায় আফগানিস্তানের বিভিন্ন স্থানে দুপক্ষের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে শতাধিক মানুষের প্রাণহানি হয়েছে।

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here