পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি বলেছেন, ভারতে করোনার চেয়ে ভয়াবহ মহামারী এখন বিজেপি। হাথরসের ঘটনার প্রতিবাদে পথে নেমে শনিবার তিনি এ মন্তব্য করেন।

মুখ্যমন্ত্রী বলেন, পাশ্চিমবঙ্গে একটা ছোট ঘটনা ঘটলেও যত কমিশন আছে পাঠিয়ে দেয়া হয়। ডিজি, এডিজিকে ডেকে পাঠায়। কত প্রশ্ন করে তখন! আর দিল্লির দাঙ্গায় লোক মারা গেলে, উত্তরপ্রদেশে দলিত কন্যাকে ধর্ষণের পরে খুন করে জ্বালিয়ে দেয়া হলেও কোনো কমিশন নেই।

উত্তরপ্রদেশে দলিত কন্যার ধর্ষণ ও খুনের ঘটনায় প্রায় ছয় মাস পরে রাস্তায় নেমে রাজনৈতিক কর্মসূচিতে অংশ নিলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা ব্যানার্জি।

এদিন বিড়লা তারামণ্ডলের সামনে থেকে ধর্মতলায় গান্ধী মূর্তি পর্যন্ত মিছিলে হাঁটেন তিনি। মিছিল শেষে সভায় মমতা বলেন, করোনার জন্য আমরা রাজনৈতিক কর্মসূচি নিইনি। কিন্তু কী করব? এখন তো অত্যাচারের মহামারী চলছে, গণতন্ত্রের পথেই তা থেকে বেরিয়ে আসতেই হবে।

মমতা বলেন, করোনার মতো মহামারী সঙ্গে আমরা লড়াই করছি। তবে এ দেশে সব থেকে বড় মহামারী এখন বিজেপি। দেশটাকে শেষ করে দিচ্ছে তারা।

হাথরাসের ঘটনার সূত্র ধরেই বিজেপির বিরুদ্ধে সুর চড়িয়েছেন তৃণমূল নেত্রী। তিনি বলেন, একটি মেয়েকে ধর্ষণ করে খুন করা হলো। বাড়ির লোকের হাতে না দিয়ে জোর করে দেহ জ্বালিয়ে দেয়া হলো। তার পরও কাউকে কথা বলতে দেবে না।

বিজেপি সুপার অটোক্র্যাসি চালাচ্ছে। নির্যাতিতার কথা যাতে না দেখানো হয়, সে জন্য সংবাদমাধ্যমকেও হুমকি দেয়া হচ্ছে।

কৃষি আইনের সমালোচনা করে মমতা বলেন, ‘দেশে দুর্ভিক্ষ হবে। সব শুধু বিজেপি খাবে।’

দলিত তফসিলিদের ওপর নির্যাতন নিয়ে রাজ্যজুড়ে লাগাতার প্রতিবাদ কর্মসূচির কথাও এদিন ঘোষণা করেন মমতা। তৃণমূল প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি হাথরসের ঘটনার প্রতিবাদে এদিনই রাজভবনের সামনে বিক্ষোভ দেখায়।

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here