সংগৃহীত ছবি

তাবলীগ জামাতের প্রবীণ জিম্মাদার আলমি শুরার প্রধান হাজি আবদুল ওয়াহাব ইন্তেকাল করেছেন। ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন।

দীর্ঘ অসুস্থতার পর রোববার (১৮ নভেম্বর) ফজরের নামাজের আগে তিনি ইন্তেকাল করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৯৫ বছর। তিনি দীর্ঘদিন ধরে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

তার জানাজার নামাজ বাদ মাগরিব রায়বেন্ড মারকাজ পাকিস্তানে অনুষ্ঠিত হবে।

হাজি আবদুল ওয়াহাব ১৯২৩ সালে দিল্লিতে জন্মগ্রহণ করেন। পরে দেশভাগের সময় তার পরিবার পাকিস্তান চলে যান।

তিনি লাহোর ইসলামিয়া কলেজ থেকে স্নাতক সম্পন্ন করেন। ১৯৪৪ সালে তাবলিগ জামাতে যোগদান করেন। এ সময় তিনি ব্রিটিশ ভারতের জেলা অফিসার হিসেবে কাজ করতেন।

বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে থাকা তাবলিগ জামাতের প্রতিষ্ঠাতা মাওলানা মুহাম্মদ ইলিয়াস রহমাতুল্লাহি আলাইহির সরাসরি সঙ্গী হিসাবে পরিচিত ছিলেন হাজি আবদুল ওয়াহাব।

বিশ্ব ইজতেমায় হাজি আবদুল ওয়াহাব বেশ কয়েকবার বয়ান করতেন। বিশ্ব ইজতেমায় তার দীর্ঘ বয়ান তাবলিগি সাথীদের দারুণভাবে উজ্জীবিত করতো। তার বয়ানে সাধারণ মানুষ আত্মার খোরাক পেত। তাবলিগের দ্বন্দ্ব ও অসুস্থতার কারণে গত দুই বছর ধরে তিনি বিশ্ব ইজেতমায় অংশ নেননি।

২০১৩ সালের অক্টোবর মাসে হাজি আব্দুল ওয়াহাব পাকিস্তান তালেবান ও সেনাবাহিনীর মধ্যে চলতে থাকা কয়েক বছরের ভয়াবহ সংঘর্ষ মিমাংসায় বিশাল ভূমিকা রাখেন। তার কারণে সীমান্ত এলাকায় রক্তপাত বন্ধ হয়।

২০১৪ ও ২০১৫ সালে বিশ্বের ৫০০ শীর্ষ মুসলিম ব্যক্তিদের তালিকায় হাজি আবদুল ওয়াহাবের নাম ১০ নম্বরে উঠে আসে।

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here