তিনি চীনা নাগরিক। চীন থেকে করোনাভাইরাস এনে ছড়াচ্ছেন ইসরায়েলে। এই সন্দেহে এক ভারতীয় বংশোদ্ভূত ব্যক্তিকে বেধড়ক পেটানো হয়েছে ইসরায়েলে।

শনিবার এ ঘটনাটি ঘটেছে ইসরায়েলের তিবেরিয়াস শহরে। বেধড়ক পিটুনি খেয়ে একাধিক আঘাত নিয়ে বর্তমানে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন তিনি।

ভারতীয় বংশোদ্ভূত ২৮ বছরের ওই ব্যক্তির নাম আম-শালেম সিঙ্গসন। তিনি বেনি মেনাশে সম্প্রদায়ভুক্ত। উত্তর-পূর্ব ভারতের মণিপুর ও মিজোরামে বসবাস করেন ওই সম্প্রদায়ের মানুষরা। তিন বছর আগে পরিবারকে নিয়ে ভারত থেকে ইসরায়েলে গিয়েছিলেন তিনি।

শনিবার দুই ব্যক্তি সিঙ্গসনকে ‘চাইনিজ’ বলে চিহ্নিত করেন এবং করোনা ছড়ানোর জন্য তাকে দায়ী করেন। তারপরই বেধড়ক মারধর করা হয় তাকে। বুকে আঘাত পেয়ে বর্তমানে তিনি পোরিয়া হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

ঘটনার পর তিনি পুলিশকে জানিয়েছেন, আক্রমণকারীদের তিনি বার বার বলেছিলেন, তিনি চীন থেকে আসেননি। এবং তিনি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত নন। কিন্তু তার কথা শোনেননি দুই আক্রমণকারী। সে দেশের সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন অনুসারে, এই ঘটনার কোনো প্রত্যক্ষদর্শী না থাকায় সিসিটিভি ফুটেজের মাধ্যমে অভিযুক্তদের চিহ্নিত করার চেষ্টা চালাচ্ছে পুলিশ।

বেনি মেনাশে সম্প্রদায়ের মানুষদের ইসরায়েলে অভিবাসন দেওয়ার কাজ করে শাভেই ইসরায়েল নামের এক সংস্থা। এই ঘটনার জেরে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন সেই সংস্থার চেয়ারম্যান মিকেল ফঁয়েদ। সূত্র: আনন্দবাজার।

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here