এবারও লুট হয়ে গেল চামড়া বাজার। সরকার নির্ধারিত মূল্যের অর্ধেক দামেও বিক্রি হচ্ছে না চামড়া। এদেশের মানুষ সিন্ডিকেটের কাছে কতটা জিম্মি তা আবারো প্রমাণিত হলো। আর এ সরকার কতটা দায়িত্বহীন কিংবা নিয়ন্ত্রনহীন তা আবারো স্পষ্ট হলো।

সরকার তোতা পাখির মতো কেবল “উন্নয়ন হয়েছে” শব্দটি মুখস্ত করতে সক্ষম হয়েছে। আর উন্নয়নের কোন বিষয় সামনে এনে শব্দটি প্রয়োগের যথার্থতা প্রমাণে ব্যর্থ প্রয়াস চালিয়ে যাচ্ছে।

কৃষক ধানের ন্যায্য মূল্য পাচ্ছে না, উন্নয়ন হয়েছে ! দুই দুই বার শেয়ার বাজার লুট হয়ে গেছে, উন্নয়ন হয়েছে! ডেঙ্গুতে লোক মারা যাচ্ছে, উন্নয়ন হয়েছে দেশ সিঙ্গাপুর হয়েছে! নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি পেয়েছে, উন্নয়ন হয়েছে! গ্যাস ও বিদ্যুতের দাম দফায় দফায় কয়েকগুণ বৃদ্ধি পেয়েছে, উন্নয়ন হয়েছে! অর্থাৎ যত অপকর্ম আর ব্যর্থতা ঢাকার জন্য শুধু শুধুই এই শব্দটির উপর অত্যাচার হচ্ছে। সামগ্রিকভাবে উন্নয়ন হচ্ছে না।

আসলে বঙ্গবন্ধু ঠিকই বলেছিলেন, “পাকিস্তানিরা সব নিয়ে গেছে; তবে রেখে গেছে একদল চোর।” এই চোরেরা দীর্ঘ সময় মসনদে থাকার সুযোগ পেয়ে এখন ডাকাতে পরিণত হয়েছে। সেজন্য এখন আর পুকুর চুরি হয় না, সাগর চুরি হয়।

এক সময় গরুর চামড়া প্রতি পিস তিন থেকে সাড়ে তিন হাজার টাকা পর্যন্ত বিক্রি হয়েছে। এখন বিক্রি হচ্ছে তিন থেকে সাড়ে তিনশ টাকায়। অথচ বাণিজ্যমন্ত্রণালয় স্বীকার করতে বাধ্য হয়েছে যে, দেশে-বিদেশে কোথাও চামড়ার দাম কমেনি। আর আমরাও স্বচক্ষে দেখতে পাচ্ছি যে, চামড়া থেকে প্রস্তুতকৃত কোন জিনিসের মূল্য কমছে না বরং দিন দিন বেড়েই চলছে। এটাকে সাগর চুরি না বলে আর কী বলা যেতে পারে?

(ফেসবুক স্ট্যাটাস)

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here