নির্বাচনের সংবাদ সংগ্রহে করতে গিয়ে ঢাকার নবাবগঞ্জে সাংবাদিকেরা আওয়ামী লীগের কর্মীদের হামলার শিকার হয়েছেন বলে জানা গেছে। সোমবার রাতের এই হামলায় যমুনা টেলিভিশন ও দৈনিক যুগান্তরের ১০ থেকে ১২ জন সাংবাদিক আহত হন।

যমুনা টেলিভিশনের বিশেষ প্রতিবেদক সুশান্ত সিনহা বলেন, নির্বাচনের সংবাদ সংগ্রহে যুগান্তর এবং যমুনা টেলিভিশনের প্রায় ৪০ জন সাংবাদিক ঢাকা থেকে নবাবগঞ্জে গিয়েছেন। তাঁরা কলাকোপা এলাকায় শামীম গেস্ট হাউসে অবস্থান করছিলেন। ওই ভবনের নিচ তলায় ঢাকা-১ আসনের আওয়ামী লীগের প্রার্থী সালমান এফ রহমানের একটি নির্বাচনী কার্যালয় রয়েছে। দুপুর থেকে সেখানে আওয়ামী লীগের কর্মীরা অবস্থান করছিলেন। রাত ১০টার দিকে আওয়ামী লীগের কর্মীরা হকিস্টিক, লাঠি এবং ধারালো অস্ত্র নিয়ে সাংবাদিকদের কক্ষে কক্ষে গিয়ে হামলা করে।

সুশান্ত সিনহা বলেন, সাংবাদিকদের মারধরের পর ভবন থেকে নেমে সামনে রাখা সংবাদকর্মীদের ১২টি গাড়ি ভেঙেছে সরকার দলীয় সমর্থকেরা। তিনি অভিযোগ করেন, হোটেলে অবস্থানরত সাংবাদিকদের প্রায় ঘণ্টাখানেক অবরুদ্ধ করে রাখা হয়। কিন্তু তাৎক্ষণিক আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে বিষয়টি জানিয়েও কোনো লাভ হয়নি।

নবাবগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) কামরুল হাসান বলেন, হামলার খবর শুনে তাঁরা ঘটনাস্থলে গেছেন। পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

তবে অভিযোগের বিষয়ে জানতে সালমান এফ রহমান ও স্থানীয় কয়েকজন আওয়ামী লীগ নেতার সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হয়। কিন্তু এতে তাঁদের সাড়া মেলেনি।

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here