কওমি মাদরাসা শিক্ষা বোর্ড গওহরডাঙ্গার সভাপতি, খাদেমুল ইসলাম বাংলাদেশের আমীর ও গওহরডাঙ্গা মাদরাসার মুহতামিম আল্লামা মুফতি রুহুল আমীন বলেছেন, ভাস্কর্য এবং মূর্তি একই জিনিস। ইসলামী শরীয়ত এগুলোর অনুমোদন করেনা। দেশের শীর্ষ উলামা-মাশায়েখ এ বিষয়ে তাদের মতামত দিয়েছেন এখন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কে শীর্ষ আলেমদের সাথে পরামর্শ করে এ ব্যাপারে দ্রুত সিদ্ধান্ত নিতে হবে।

আজ গওহরডাঙ্গা মাদরাসায় দক্ষিণ বঙ্গের আট শতাধিক মাদরাসার মুহতামিম-প্রতিনিধি, ইমাম-খতিবদের এক আলোচনা সভায় সাভাপতির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

মুফতি রুহুল আমীন বলেন, দেশের আলেম-উলামা দেশের সংবিধান এবং আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। দেশে আইন-শৃঙ্খলার অবনতি হোক এটা কখনোই আমরা চাই না। কিন্তু দেশের কিছু নাম-বেনামের ভূইফোঁড় সংগঠন অ-দৃশ্য কারোর উস্কানীতে দেশের আলেম-উলামাদের শানে বেয়াদবী মূলক আচরণ করে দেশের আইন-শৃঙ্খলা বিনষ্টের চেষ্টা করছে। অনতিবিলম্বে তাদের এবং তাদের মদদদাতাদের চিন্থিত করে আইনের আওতায় আনতে হবে। অন্যথায় আইন-শৃঙ্খলার অবনতি হলে এর দায়ভার সরকারকেই বহন করতে হবে।

সভায় মুফতি উসামা আমীন বলেন, ভাস্কার্যসহ সকল শরীয়ত বিরোধী বিষয়ে দেশের আলেম-উলামা ঐক্যবদ্ধ। শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদের মাধ্যমে আমরা দেশের মানুষকে সচেতন করছি। দেশের শীর্ষ আলেম-উলামাগণ যে সিদ্ধান্ত নিবেন আমরা ঐক্যবদ্ধভাবে সফল করার জন্য কাজ করব।

তিনি বলেন, প্রয়োজনে আলোচনা এবং শান্তিপূর্ণ আন্দোলন এক সাথে চলবে।

সভায় বক্তগন বলেন, ওয়াজ মাহফিলগুলো দেশের সাধারণ মানুষের ঈমান-আমল শেখার অন্যতম উপাদান। দেশের হাট-বাজার, মার্কেট-শপিংমল সহ রাজনৈতিক সভা সমাবেশ চললেও অজ্ঞাত কারণে স্থানীয় প্রশাসন ওয়াজ মাহফিল গুলো বন্ধ করে দিচ্ছে, যা দেশ এবং জন-সাধারণের জন্য কল্যাণকর না। বক্তাগন অনতিবিলম্বে ওয়াজ মাহফিল থেকে বিধি-নিষেধ উঠিয়ে নেওয়ার আহ্বান জানান।

মুফতি মোহাম্মাদ তাসনীম ও মুফতি মাকসূদুল হকের পরিচালনায় অন্যাণ্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, সংগঠনের মহাসচিব মাওলানা শামছুল হক, ফরিদপুরের বাহিরদিয়া মাদরাসার মাওলানা আকরাম আলী, সাতক্ষীরার মাওলানা অজিউর রহমান, রাজৈর মাদারীপুরের মুফতি রেজাউল ইসলাম, গোপালগঞ্জের মুফতি মুঈনুদ্দিন, মুফতি হাফিজুর রহমান, ঢাকার মুফতি খালেদ সাইফুল্লাহ, বাগেরহাটের মাওলানা আশিকুর রহমান,খুলনার মাওলানা দ্বিন ইসলাম, মাওলানা কাবিরুল ইসলাম, মাওলানা মাহমুদুল হাসান, মাওলানা আবুল কালাম, মাওলানা জামাল উদ্দিন, মাওলানা হায়াত আলী, মাওলানা মুদ্দাসসীর, মাওলানা নিজামুদ্দিন প্রমূখ আলেম-উলামগন

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here