বঙ্গোপসাগরের বাংলাদেশ জলসীমায় অনুপ্রবেশ করে অবৈধভাবে মাছ শিকারের অভিযোগে একটি ফিশিং ট্রলারসহ ১৭ ভারতীয় জেলেকে আটক করেছে কোস্টগার্ড। এ ঘটনায় জাল-ট্রলারসহ আহরিত বিপুল পরিমাণ মাছ জব্দ করা হয়েছে।

ট্রলার, জাল ও মাছসহ আটকদের বুধবার (২ ডিসেম্বর) রাতে মোংলা থানা পুলিশে হস্তান্তর করেছে কোস্টগার্ড। আটকরা সবাই ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বাসিন্দা বলে জানা গেছে।

মোংলা কোস্টগার্ড পশ্চিম জোনের অপারেশন কর্মকর্তা লে. কমান্ডার এম সিদ্দিক হাসান এ তথ্য নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, মোংলা বন্দরের অদূরে বঙ্গোপসাগরের ফেয়ারওয়ে বয়া এলাকায় মঙ্গলবার (১ ডিসেম্বর) বিকেলে নিয়মিত টহল দেওয়ার সময় অনুপ্রবেশকারী সন্দেহজনক কয়েকটি ফিশিং ট্রলার দেখতে পেয়ে এগিয়ে যায়। এ সময় কোস্টগার্ড সমুদ্রের দেশীয় জলসীমা থেকে ‘এফবি মা শিবানী’ নামের একটি ট্রলারসহ ১৭ ভারতীয় নাগরিককে আটক করে।

মোংলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ইকবাল বাহার চৌধুরী জানান, ট্রলারে থাকা বিভিন্ন প্রজাতির প্রায় এক মেট্রিক টন মাছ নিলামে বিক্রি করে টাকা সরকারি কোষাগারে জমা দেওয়া হয়েছে।

আটকদের বিরুদ্ধে সমুদ্র সীমানা লঙ্ঘন আইনে মামলা দায়েরের পর বৃহস্পতিবার সকালে বাগেরহাট আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হবে বলে জানিয়েছেন মোংলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ( ওসি) মো. ইকবাল বাহার চৌধুরী।

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here