ফ্রান্সে বিশ্ব মানবতার মুক্তির দূত নবীজি হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের কার্টুন এঁকে দেয়ালে দেয়ালে প্রদর্শন, ধারাবাহিকভাবে ইসলামবিদ্বেষী পদক্ষেপ এবং মুসলমানদের হয়রানী ও নির্যাতনের প্রতিবাদে ছাত্র জমিয়ত বাংলাদেশ রাজধানী ঢাকায় মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করেছে।

আজ (২৫ অক্টোবর) রবিবার, বাদ আসর রাজধানী ঢাকায় এক প্রতিবাদী মানববন্ধন করেছে ছাত্র জমিয়ত বাংলাদেশ ঢাকা মহানগর ভাটারা থানার নেতৃবৃন্দ।

ভাটারা থানা ছাত্র জমিয়তের সাধারণ সম্পাদক নাহিদুল ইসলামের সভাপতিত্বে ও সাংগঠনিক সম্পাদক আমজাদ আফসারীর পরিচালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন- ছাত্র জমিয়ত বাংলাদেশ ঢাকা মহানগরীর প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক নূর হোসাইন সবুজ।

ফ্রান্সে রাসূল (সা.)এর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শন করায় ফ্রান্সের তীব্র সমালোচনা করে নূর হোসাইন সবুজ বলেন, অভিশপ্ত ফ্রান্সের কয়েকটি সরকারী ভবনে রাসূল (সা.)এর কার্টুন প্রদর্শন করে রক্তাক্ত করা হচ্ছে দুইশত কোটি মুসলিম উম্মাহ’র হৃদয়।

তিনি বলেন, যারা রাসূলের শত্রু তারা আল্লাহর শত্রু এবং শান্তিকামী মানবতার শত্রু। অনতিবিলম্বে রাসূল (সা.)এর ব্যঙ্গচিত্র প্রত্যাহার করে বিশ্ববাসীর কাছে ফ্রান্সের ক্ষমা চাইতে হবে।

ফ্রান্সের কুলাংগার শিল্পীদের প্রতি হুঁশিয়ার উচ্চারণ করে বলেন, সাবধান, আগুন নিয়ে খেলো না। রাসূলের ব্যঙ্গচিত্র পুড়িয়ে দাও ধ্বংস করো।

তিনি বলেন, আমাদের হৃদয়ে রক্তক্ষরণ হচ্ছে। আমরা বিশ্ববাসীরকে উদাত্ত আহ্বান জানাবো ঈমানী দায়িত্ব হিসেবে ফ্রান্সের পণ্য বর্জন করুন।

বাংলাদেশ সরকারকে উদ্দেশ্য করে ছাত্র নেতা নূর হোসাইন সবুজ বলেন, ফ্রান্সের পণ্য নিষিদ্ধ করে ফ্রান্সের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রীয়ভাবে কঠোর নিন্দা জানাতে হবে। ফ্রান্সের রাষ্ট্রদূতকে তলব করে ইসলামবিদ্বেষী তৎপরতার তীব্র প্রতিবাদ জানাতে হবে।

ছাত্র জমিয়ত বাংলাদেশ ভাটারা থানা সাধারণ সম্পাদক নাহিদুল ইসলাম বলেন, ফ্রান্সের জ্বলে উঠা দাবানলে আমি স্পষ্ট তাদের ধ্বংসলীলা দেখতে পাচ্ছি। রোম-পারস্যের দাম্ভিকের প্রাচীরগুলোর মতো আইফেল টাওয়ারে ধ্বস নামবে, ইনশাআল্লাহ।

এসময় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, ছাত্র জমিয়ত বাংলাদেশ ঢাকা মহানগরীর অর্থ সম্পাদক মাহদী হাসান, ভাটারা থানা নেতাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মতিউর রহমান, সহ সম্পাদক ইব্রাহিম ইসলাম মুন্না, ইউসুফ কামাল, প্রচার সম্পাদক আবু রায়হান, ছাত্রনেতা তরিকুল ইসলাম, দেলোয়ার হোসাইন, সাইফুল ইসলাম, তাওহীদুল ইসলাম প্রমুখ।

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here