রাজধানীর হাজারীবাগ থানাধীন দক্ষিণ বসিলায় তিন সন্তান মিলে বাবাকে খুনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ হত্যাকাণ্ডে সহযোগিতা করেছেন নিহতের স্ত্রী। নিহত ব্যক্তির নাম লাল মিয়া (৪৫)। তিনি একজন কাঁচামাল ব্যবসায়ী। মঙ্গলবার (১৩ অক্টোবর) দুপুর ২টার দিকে ঘটনাটি ঘটে।

রক্তাক্ত অবস্থায় লাল মিয়াকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতের ভাই শহর আলী জানান, হাজারীবাগের দক্ষিণ বসিলা ১৪৫ নম্বর নিজ বাসার দোতলায় থাকতেন লাল মিয়া। আর তিন ছেলে একই বাড়িতে আলাদা তিনতলায় থাকতেন। পারিবারিক কলহের জের ধরে ৭-৮ মাস আগে স্ত্রী আরজুদা বেগমকে তালাক দেন লাল মিয়া। তালাকপ্রাপ্ত স্ত্রীর আরজুদা বেগমও বাড়ির তিনতলায় ছেলেদের সঙ্গে থাকতেন।

তিনি আরও জানান, তিন ছেলে মায়ের পক্ষেই ছিলেন। লাল মিয়ার ছেলে ও স্ত্রীর সঙ্গে সবসময় ঝগড়া লাগত। মঙ্গলবার দুপুরে ছেলেরা তার ঘরে ঢুকে বুকে ও পেটে ছুরিকাঘাত করেন। এ সময় স্ত্রী আরজুদা বেগম দাঁড়িয়ে তাদের সহযোগিতা করেন।

লাল মিয়াকে রক্তাক্ত অবস্থায় বাসায় পড়ে থাকতে দেখেন শহর আলী। পরে তাকে উদ্ধার করে প্রথমে শিকদার মেডিকেলে নেয়া হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে ঢামেক হাসপাতালে নেয়া হয়। বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here