খুলনায় অনশনরত অবস্থায় মারা যাওয়া পাটকল শ্রমিক আবদুস সাত্তারকে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে একটি আবেগঘন স্ট্যাটাস দিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের অধ্যাপক ড. আসিফ নজরুল।

আসিফ নজরুল বলেন, এই করুণ মৃত্যু আর এর কারণ নিয়ে এদেশে আর কথা বলা হবে না। আমিও এটা এড়াতে চেয়েছিলাম। তারপর মনে হলো কাল না আমাদের বিজয় দিবস! কিছু কথা বলা উচিত এখন।

তিনি বলেন, কথায় কথায় আমরা মুক্তিযুদ্ধের চেতনার কথা বলি আজকাল। কিন্তু ভুলে যাই যুদ্ধটা হয়েছিল কেন, কী আসলে এর চেতনা?

এ যুদ্ধটা করেছিল মূলত এই হতভাগ্য পাটকল শ্রমিকের মতো সাধারণ মানুষ। মরণপণ যুদ্ধ করে এদেশের কৃষক-শ্রমিক-মেহনতি মানুষ দেশটাকে স্বাধীন করেছিল তাদের ভাগ্য উন্নয়নের জন্য, সব বঞ্চনা থেকে মুক্তির জন্য।

ঢাবি অধ্যাপক আরও বলেন, বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে ১৯৭২ সালের গণপরিষদের বিতর্কে বারবার এ কথাগুলো এসেছে। ১৯৭২ সালের সংবিধানে রাষ্ট্রপরিচালনার মূলনীতি হিসেবে গণতন্ত্র আর শোষণ-বঞ্চনা থেকে সাধারণ মানুষের মুক্তির কথা সবচেয়ে বেশি জোর দিয়ে, সবচেয়ে বিশদভাবে, সবচেয়ে স্পষ্টভাবে বলা আছে।

আসিফ নজরুল বলেন, যখন বলা হয় মুক্তিযুদ্ধের পক্ষে-বিপক্ষে, তখন তাই বলতে হবে-যারা কৃষকের ফসলের দাম দেয় না, শ্রমিকের বেতন দেয় না, লুটপাট আর দুর্নীতির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয় না তারাও মুক্তিযুদ্ধের চেতনার বিপক্ষের শক্তি। এটা না বলা মুক্তিযুদ্ধের অবমাননা। মানবতাও অবমাননা।

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here