ছবি-সংগৃহীত

পোশাক এবং আচরণবিধির ওপর নতুন করে আইন জারি করেছে সৌদি আরব। নতুন নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, প্রকাশ্যে আঁটসাঁট পোশাক পরা এবং চুম্বন করা যাবে না। জনসম্মুখে শালীনতা ভঙ্গ করলে গুনতে হবে জরিমানা।

পোশাক এবং আচরণবিধি সংক্রান্ত ১৯টি বিষয়কে ‘অপরাধ’ হিসেবে চিহ্নিত করেছে দেশটির অভ্যন্তরীণ মন্ত্রণালয়। তবে এসব অপরাধের জন্য জরিমানার পরিমাণ স্পষ্ট করা হয়নি। ইসলামী আইন অনুযায়ী অপরাধের ধরন ও প্রেক্ষাপট বিবেচনা করেই শাস্তি দেয়া হবে।

সৌদির পর্যটন দফতরের ওয়েবসাইটে ইংরেজি নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, ‘নারী-পুরুষ সকলকে পোশাকের ক্ষেত্রে শালীনতা মেনে চলতে হবে। প্রকাশ্যে ঘনিষ্ঠ হওয়া থেকেও বিরত থাকতে হবে।’

নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, প্রকাশ্যে কোনও আঁটসাঁট পোশাক পরা যাবে না। পোশাকে কোনও ‘অপবিত্র শব্দ বা ছবি’ যেন না থাকে। মেয়েদের কাঁধ এবং হাঁটু ঢাকা পোশাক পরা বাধ্যতামূলক।

তবে বিদেশিদের বোরখা পরতে বাধ্য করা হবে না। এই নির্দেশিকা শুধু আরবের মহিলাদের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য বলে জানিয়েছে প্রশাসন।

দেশটির প্রশাসন জানিয়েছে, এই নির্দেশিকার উদ্দেশ্য হল, বিদেশি ও পর্যটকেরা যেন সৌদি আরবের প্রকাশ্য আচরণ বিধি সম্পর্কে অবগত হন।

বাদশা সালমান ক্ষমতাসীন হওয়ার পর থেকেই নারীদের নিয়ে অনেক বিতর্কিত সিদ্ধান্ত নিয়ে আসছিলেন। উদারতা কিংবা নারী স্বাধীনতার নামে গৃহীত তার অনেক সিদ্ধান্তই সমালোচিত হয়েছে। তবে এবারের সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে আরব সহ মুসলিম বিশ্ব। এই জন্য যে, শান্তির সমাজ ব্যবস্থার জন্য নারী-পুরুষ উভয়কেই শালীন হওয়া দরকার। 

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here