যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসে মৃত্যু হয়েছে প্রায় তিন হাজার মানুষের। সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত নিউ ইয়র্ক। এই অঙ্গরাজ্যে মৃত্যু হয়েছে ১,২১৮ জনের।করোনা মোকাবিলায় জরুরি ভিত্তিতে চিকিৎসা স্বেচ্ছাসেবী পাঠানোর আকুল আবেদন করেছেন নিউ ইয়র্কের গভর্নর অ্যান্ড্রু কুয়োমো। তার মতে, আমেরিকানদের জন্য ধেয়ে আসছে সুনামি। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা এই খবর জানিয়েছে। নিউ ইয়র্কে মৃতের সংখ্যা লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়তে থাকায় দুশ্চিন্তায় দিন কাটছে কুয়োমোর। সবার সাহায্য চেয়ে সোমবার তিনি বলেছেন, ‘দয়া করে নিউ ইয়র্কে আসুন, আমাদের বাঁচান। আমাদের সাহায্য দরকার।’

কুয়োমোর এই আবেদনের দিনে নৌবাহিনীর জাহাজ ইউএসএনএস কমফোর্ট পৌঁছেছে বন্দরে।করোনায় অঙ্গরাজ্যের সব হাসপাতাল ভরে যাওয়ায় এ ভাইরাসে আক্রান্ত নয়, এমন রোগীদের চিকিৎসা হবে ১০০ শয্যার এই জাহাজে।করোনাভাইরাসের ভয়াবহতা নিয়ে নিউ ইয়র্ক গভর্নর বলেছেন, ‘ডেট্রয়েট হোক, আর নিউ ওরলিন্স, এটা (ভাইরাস) তার মতো করে কাজ করে যাবে পুরো দেশে।’করোনা সবচেয়ে ভয়ানক থাবা বসিয়েছে ইতালি ও স্পেনে। দুটি দেশেই প্রত্যেক দিন মৃত্যুর সংখ্যা ৮০০’র কাছাকাছি বা তার বেশি থাকলেও সংক্রমণ কমতে শুরু করেছে জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। কিন্তু এখন সবচেয়ে ঝুঁকিপ‚র্ণ হয়ে উঠছে যুক্তরাষ্ট্র। অবসর থেকে ফিরে এসে নার্স ও অন্য চিকিৎসা কর্মীরা স্বেচ্ছাসেবী হিসেবে কাজ করছেন। কারও প্রচেষ্টার কমতি নেই। কিন্তু তারপরও সামনে ভয়াবহ সময় আসছে জানালেন গভর্নর, ‘আপনারা দেখতে পাচ্ছেন এই ভাইরাস পুরো রাজ্যে ছড়িয়ে পড়েছে, পুরো দেশে। কোনো আমেরিকান এই ভাইরাস থেকে রক্ষা পাবে না। সুনামি আসছে।’ মৃতের সংখ্যা ঘোষণার সময় কুয়োমো বলেছেন, ‘এটা বিশাল ক্ষতির, অনেক বেদনার-কান্নার- এই অঙ্গরাজ্যের প্রত্যেকে শোকের সাগরে ভাসছে। বিজ্ঞানী, সরকারি কর্মকর্তা সবাইকে প্রতিরোধ গড়তে হবে। আল-জাজিরা।

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here