মিয়ানমারের সশস্ত্র জাতিভিত্তিক সংগঠন আরাকান আর্মি (এএ) এবং ইউনাইটেড লিগ অব আরাকানকে (ইউএলএ) সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে ঘোষণা করেছে মিয়ানমার। দেশটির রাষ্ট্রপতির আদেশের বরাতে মঙ্গলবার (২৪ মার্চ) এ খবর জানিয়েছে দ্য ইরাবতী।

গতকাল সোমবার (২৩ মার্চ) মিয়ানমারের পশ্চিমাঞ্চলীয় রাখাইন প্রদেশের তমদু অঞ্চলে একটি সেনা প্রশিক্ষণ স্কুলে হামলা চালিয়েছিল আরাকান আর্মি। ওই হামলার প্রেক্ষিতেই মিয়ানমারের সর্বোচ্চ সরকারি কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

ওই রাষ্ট্রপতির আদেশে বলা হয়েছে, আরাকান আর্মির কার্যক্রম জনস্বার্থের জন্য বিরাট হুমকি এবং দেশের আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতির পরিপন্থি। তাই এই সন্ত্রাসী সংগঠনকে সামাজিকভাবে বয়কটের আহ্বান জানানো হয়েছে। মিয়ানমারের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও সন্ত্রাসবিরোধী কমিটির চেয়ারম্যান লেফটেন্যান্ট জেনারেল সো হুটও ওই আদেশে যৌথভাবে স্বাক্ষর করেছেন।

এ ব্যাপারে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র জেনারেল জো মিন তুন জানিয়েছেন, আরাকান আর্মির পক্ষ থেকে একদিকে শান্তি আলোচনা অব্যাহত রেখে অন্যদিকে সংঘর্ষে লিপ্ত হওয়ার ঘটনা ভবিষ্যত শান্তি প্রক্রিয়াকে বাধাগ্রস্থ করবে। তিনি আরও বলেন, সরকারের পক্ষ থেকে তাদের সকল সন্ত্রাসী কার্যক্রমের নথি সংরক্ষণ করা হচ্ছে।

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here